৮ দিনেও চাটখিলের আকবর ঘরে ফেরেনি ! উদ্বিগ্ন স্বজনরা

c

স্টাফ রিপোর্টার: মো: আকবর হোসেন (২৮) নোয়াখালী চাটখিল উপজেলা ৯নং খিলপাড়া ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ড লটপটিয়া গ্রামের খামারবাড়ীর মো: দুলাল হোসেনের মেঝো ছেলে। গত সোমবার (০৫/০৩/২০১৮ইং) সকাল আনুমানিক ১০টার সময় প্রতিদিনের মত ব্যবসায়ের জন্য চন্দ্রগঞ্জের উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয় মো: আকবর হোসেন (২৮)। কিন্তু প্রতিদিনের মত বের হওয়ার দৃশ্য ঠিক থাকলেও বাড়িতে গত ৮ দিনেও ফেরা হয়নি তার। তার সাথে থাকা নিজের ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারটি সেদিন থেকে বন্ধ পাওয়া যাচ্ছে। যথা সময়ে বাড়িতে না ফেরার কারনে সম্ভাব্য আশেপাশের এলাকা ও আত্মীয়-স্বজনদের বাড়িতে খোঁজাখুঁজি করে না পেয়ে অবশেষে রবিবার (১১/০৩/১৮ইং) চাটখিল থানায় একটি সাধারণ ডাইরী (চাটখিল থানা,জিডি নং-৪৫১) করেন তার পিতা মো: দুলাল হোসেন। এদিকে সন্তানের শোকে দিশেহারা বাবা-মা। পরিবারের সবার মত বাবার জন্য এদিক-সেদিক ছোটাছুটি ও সারাদিন কান্নায় মেতে থাকে মাত্র দু’বছরের কমলমতি সন্তানটিও। পারিবারিক জীবনে মোঃ আকবর হোসেন এক সন্তানের জনক। এদিকে তার পিতা জানান, গত সোমবার (০৫/০৩/২০১৮ইং) রাত আমি বাড়িতে আসার পর ছেলের বউ জানায় ছেলে এখনো বাড়ি ফিরেনি! তখন রাত আনুমানিক দশটা। যখন তার মোবাইলে ফোন করি তখন তার ব্যবহৃত নম্বার বন্ধ পাই। পরে ভাবলাম সম্ভবত মোবাইলের চার্জ শেষ। তাই আশেপাশে খোঁজাখুঁজি করি। রাত যত বাড়তে থাকে তত দুঃশ্চিন্তাও বাড়ে। এক-এক করে গত ৭দিন ধরে সন্তানকে কোথাও না পেয়ে অবশেষে আজ চাটখিল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করি। আমি আপনার মাধ্যমে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছি যেন আমার ছেলেকে স্ব-শরীরে সুস্থ্যভাবে ফিরিয়ে দিতে অনুরোধ করছি। এদিকে মোঃ আকবর হোসেনের মা ও তার স্ত্রী শোকে কান্নায় কথা বলতে পারেননি। চোঁখের অশ্রু কেবল প্রিয়জনকে ফেরত পাওয়ার আকুতি জানান দিচ্ছে। তবে মোঃ আকবর হোসেন কোন ভাবে রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলো না বলে জানায় এলাকাবাসী। এলাকায় কারো সাথে কোন বিরোধ ও মনমালিন্যও ছিলো না তার। সবার সাথেই হাসি মূখে কথা বলতেন আকবর। তবে কেন নিখোঁজ হলেন আকবর হোসেন সে প্রশ্নই এখন এলাকাজুড়ে? তাই প্রশাসন দ্রুত মোঃ আকবর হোসনকে খুঁজে বের করবেন এবং তার পরিবার ফিরে পাবে সন্তানকে এমনটাই প্রত্যাশা সকলের।