হাজীগঞ্জে চাটখিলের ব্যবসায়ীর মৃত্যু, করোনা আক্রান্তের গুঞ্জন

বিশেষ প্রতিবেদকঃ টানা ১০ দিন জ্বর-সর্দি নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলম (৬০) মারা গেছেন।

সোমবার সকালে রাজধানীর একটি হাসপাতালে তিনি মারা যান।

জাহাঙ্গীর আলমের গ্রামের বাড়ি নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায়। তিনি হাজীগঞ্জ বাজারের কিস্তি ভিলার দ্বিতীয় তলায় বাটা সু-এর ডিলার।

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, করোনা সংক্রমণের সব উপসর্গগুলো ছিল। প্রাথমিকভাবে স্থানীয় কোনো চিকিৎসক চিকিৎসা দেননি। পরে তাকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। এ ব্যাপারে সকাল থেকে ফেসবুকে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় ওঠে।

ভালো চিকিৎসা না পাওয়ার অভিযোগ করে তার ছেলে মাহফুজ বলেন, সোমবার সকালে বাবা ঢাকার সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা গেছেন। বাবা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। ৫ দিন ওই হাসপাতালে ছিলাম। ভালো চিকিৎসা পাইনি। এর আগে কয়েকটি হাসপাতালে নিয়েছিলাম। তবে তিনি জ্বর-সর্দির বিষয়টি স্বীকার করেননি।

হাজীগঞ্জ বাজারে তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে করোনাভাইরাস আতঙ্ক বিরাজ করে। বাদ আছর চাটখিল নিজ বাড়ির পারিবারিক কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হয়।

জানতে চাইলে হাজীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সোহেব আহমেদ বলেন, হাজীগঞ্জে করোনাভাইরাস উপসর্গের কোনো রোগী নেই৷ তবে উনি কীভাবে মারা গেছেন তা আমাদের জানা নেই।

তথ্যসূত্রঃ যুগান্তর