যুব উন্নয়নের অধীনে ভ্রাম্যমাণ গাড়িতে দেওয়া হচ্ছে মাসব্যাপী কম্পিউটার প্রশিক্ষণ।

যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের অধীনে টেকাব প্রকল্পে টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলায় ৪২ জন শিক্ষার্থীকে ভ্রাম্যমাণ গাড়িতে দেওয়া হচ্ছে মাসব্যাপী কম্পিউটার প্রশিক্ষণ। উপজেলা যুব উন্নয়ন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বেকার যুবকদের প্রশিক্ষণ দিয়ে কর্মক্ষম দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তোলার জন্য দেশব্যাপী কম্পিউটার প্রশিক্ষণের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। যুব উন্নয়নের অধীন টেকনোলজি এমপাওয়ারমেন্ট সেন্টার অন হুইলস ফর আন্ডারপ্রিভিলেজড রুরাল ইয়াং পিপল অব বাংলাদেশ (টেকাব) নামে একটি প্রকল্পের মাধ্যমে প্রত্যেক জেলা-উপজেলা পর্যায়ে ভ্রাম্যমাণ গাড়িতে করে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ চালু করা হয়েছে।

এই প্রকল্পের অধীন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার ২২ জন নারী শিক্ষার্থীসহ ৪২ জন শিক্ষার্থীকে তিনটি ব্যাচে ভ্রাম্যমাণ গাড়িতে মাসব্যাপী কম্পিউটার প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে। ভ্রাম্যমাণ গাড়িতে দুই জন প্রশিক্ষক রয়েছে শিক্ষার্থীদের প্রশিক্ষণ দিতে। প্রশিক্ষণ নেওয়া শিক্ষার্থী আফরোজা বলেন, কম্পিউটার প্রশিক্ষণ নিয়ে বেকারত্বের পাশাপাশি যদি চার-পাঁচটি কম্পিউটার ক্রয় করে বাড়িতে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করি তাহলে এখান থেকে ভালো উপার্জন সম্ভব।

অনেক সময় মেয়েরা দূরে গিয়ে প্রশিক্ষণ নিতে চায় না ঐসব মেয়েদের কাছ থেকে অল্প টাকা নিয়ে প্রশিক্ষণ দিলে তারা তা গ্রহণ করবে। প্রশিক্ষণে অংশ নেওয়া জাহাঙ্গীর নামের আরেক জন শিক্ষার্থী বলেন, প্রশিক্ষণ শেষে যে সনদপত্র দেওয়া হবে সেটা দিয়ে সরকারি-বেসরকারি চাকরিতে আবেদন করতে পারব। যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের অধীন টেকাব প্রকল্পের প্রশিক্ষক এস এম এ পারভেজ বলেন, জেলা পর্যায়ে যুব উন্নয়নের ট্রেনিং সেন্টার রয়েছে। সেখানে যে কোর্সগুলো করানো হয় সেই কোর্সগুলোর সমন্বয় করে একটি বেসিক কোর্স তৈরি করে এখানে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। বেকারদের আত্মকর্মী ও দক্ষ জনশক্তি হিসেবে গড়ে তোলার জন্য এই প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছে সরকার।