বিএনপি জামায়াত ঐকজোট চাটখিলে সবাই এখন নৌকার লোক!!!

চাটখিল উপজেলা আওয়ামী লীগের মাঠ পর্যায়ের নেতাদের অনেকেই মনে করেন, বিভিন্ন দল থেকে যোগ দেয়া লোকজন একটি সুবিধাবাদী গোষ্ঠী তৈরি করায় ত্যাগী নেতা-কর্মিরা দলে কোণঠাসা হয়ে পড়ছে। সম্প্রতি দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দলে ‘নব্য সুবিধাবাদী’ আওয়ামী লীগারদের ‘কাউয়া’ এবং ‘ফার্মের মুরগি’র সাথে তুলনা করেছেন। উপজেলা আওয়ামীলীগের শীর্ষ নেতারা ওবায়েদুল কাদেরের এ কথাটি এক কানে শুনছেন তো অন্যকানে বাহির করে দিয়েছেন বলে অনেকে মনে করেন। এদিকে পুরো উপজেলা ঘুরে দেখাযায়, ব্যানার, প্যাস্টুন কিংবা সকল প্রচারে অনেক নব্য আওয়ামীলীগার যারা গত বিএনপি জমায়াতের আমলেও নেতা ছিলেন। তবে মজার বিষয় হলো, এসকল নব্য আওয়ামীলীগ নেতারা বিএনপি ক্ষমতা থাকতে দলের যে পদে ছিলেন, ঠিক আওয়ামীলীগের সেই একই পদপ্রার্থী হিসেবে নিজেকে যোগ্য মনে করে ইতোমধ্যে গাছে, বাসে এবং বিভিন্ন প্রচারে নেমে গেছেন। উপজেলার বিভিন্ন ত্যাগী নেতারা চাটখিলবার্তাকে বলেছেন, সুবিধাবাদীদের দাপটের কাছে তারা নিজেরাও এখন ভুক্তভোগী। এদিকে ইউনিয়ন ঘুরে দেখা যায়, হঠাৎ করে কিছু লোক যাদের আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে কখনও দেখা যায়নি।তারা বিশাল ক্ষমতা নিয়ে হাজির হচ্ছে। তারা নিজেদের প্রমাণ করতে চাইছে যে, তারা আওয়ামী লীগের অনেক বড় নেতা। এদের কারণে ত্যাগী নেতা-কর্মিরা অনেক সময় কোণঠাসা হচ্ছে।” প্রতিপক্ষ বিএনপি এবং এমনকি জামায়াতে ইসলামী থেকেও মাঠ পর্যায়ে আওয়ামী লীগে যোগ দেয়ার কয়েকটি ঘটনা প্রকাশ্যে ঘটেছিল। এনিয়ে দলটিকে সমালোচনা মোকাবেলা করতে হয়েছে।