প্রথমবারের মতো হিমালয়ের চুলু-ফারইস্ট পর্বতে অভিযানে যাচ্ছে বাংলাদেশর একদল অভিযাত্রী

প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ থেকে হিমালয়ের চুলু-ফারইস্ট পর্বতে শীতকালীন অভিযানে যাচ্ছে একদল অভিযাত্রী।

অ্যাডভেঞ্চার ক্লাব দ্য কোয়েস্টের পক্ষ থেকে ‘গো জায়ান উইন্টার এক্সপেডিশন ২০২০’ শিরোনামে অভিযানে অংশ নেয়া অভিযাত্রীরা হচ্ছেন সালেহীন আরশাদী, ইন্তিয়াজ মাহমুদ, তাহমিদ হোসাইন রাফিদ এবং সামিউর রহমান তূর্য।

১২ ফেব্রুয়ারি হিমালয়ের এই দুর্গম চূড়া আরোহণের অভিযানে দেশ ছাড়ছেন তরুণরা। এক মাসের এই অভিযানে হিমালয়ের চরমতম আবহাওয়ায় অন্নপূর্ণা পর্বতশ্রেণীতে অবস্থিত ১৯,৮৭৮ ফুট উচ্চতার চুলু-ফারইস্ট পর্বতে বাংলাদেশের পতাকা ওড়ানোর চেষ্টা করবেন এই তরুণ অভিযাত্রীরা।

হিমালয়ের হিমবাহগুলোর গলা পানি থেকেই এই অঞ্চলের নদ নদীর সৃষ্টি, যা ব-দ্বীপে প্রাণ সঞ্চার করেছে। জলবায়ুর অভিযোজনে হিমবাহ গলে যাওয়ার মাত্রা দ্রুততর হচ্ছে, যা বাংলাদেশের মত ভাটির দেশের জন্য মারাত্মক বিপর্যয় ডেকে আনছে।

পর্বতারোহণের পাশাপাশি তাই দলটি বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধির ভয়াবহতা ও পরিবেশ বিপর্যয়ের বিষয়ে সচেতনতা সৃষ্টির প্রয়াস চালাবে।

হিমালয়ে শীতকালীন অভিযান নানা কারণে অত্যন্ত দুঃসাধ্য। পাঁচ হাজার মিটার উচ্চতার পর অক্সিজেনের পরিমাণ সমতলের অর্ধেক। অক্সিজেনের অভাবে প্রতিটি পদক্ষেপ নেওয়া বেশ কষ্টসাধ্য হয়ে দাঁড়ায়।

সেই সঙ্গে শীতকালের তাপমাত্রা মাইনাস ৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে যায়। তীব্র ঠাণ্ডার সঙ্গে তুমুল তুষারঝড়, হঠাৎ করে নেমে আসা তুষারধ্বস ও ফাটলের বাধা অভিযাত্রীদের মোকাবেলা করতে হবে। শীতকালীন এই অভিযানটি পৃষ্ঠপোষকতা করছে গো জায়ান।