পাল্লার ঐতিহ্য পাল্লা জামে মসজিদ

মাইনউদ্দিন বাধন:

চাটখিল উপজেলার ৫নং মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের সবচাইতে বড় গ্রাম পাল্লা, এই ইউনিয়নে প্রতিষ্ঠিত বাজার হচ্ছে পাল্লা বাজার। এখানে রয়েছে পুরস্কার প্রাপ্ত সাবেক শিক্ষামন্ত্রী ও চাটখিলের রুপকার এ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমানের হাতে গড়া একটি উচ্চ বিদ্যালয়। যার নাম, মন্ত্রী নিজের নামেই দিয়েছেনে পাল্লা মাহবুব আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয়। তাছাড়া এই এলাকাতে রয়েছে অনেক ঐতিহ্য আর আগের দিনে হিন্দুর রাজাদের গড়া বিভিন্ন স্থাপনা, বাজারের পশ্চিম পাশে রয়েছে হিন্দু ধর্মের নিদর্শন একটি মোট। এই গ্রামের ছোট বড় অনেক দর্শণীয় স্থানের মধ্যে সাধারণ মানুষ সহ উপজেলা কিংবা পুরো নোয়াখালীর জুড়ে মানুষের সামনে যে দশর্ণীয় স্থান ফুটে উঠে তা হল পাল্লা জামে মসজিদ। উপজেলা সদর চাটখিলবাজার থেকে বানসা বাজারে যেতেই পাল্লা বাজার। বাজারের দিকে ঢুকতেই হাতের বাম পাশে রাস্তার পশ্চিম পাশে ঐতিহ্যের স্বাক্ষী হয়ে দাড়িয়ে আছে এই মসজিদটি। ১৮ শতাব্দীতে এই মসজিদ নির্মাণের পর থেকেই পাল্লাগ্রামের ধর্মাবলম্বীদের তীর্থস্থান হয়ে উঠে পাল্লা জামে মসজিদটি। এই মসজিদের ইমাম/খতিব নিযুক্ত হতে হলে তাকে অবশ্যই আরবি শিক্ষায় প্রারদর্শী ও কোরআনের হাফেজ হতে হয়। ফলে অল্পদিনের মধ্যেই এই মসজিদ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। বলা বাহুল্য যে, এই জুমা মসজিদে প্রতি জুম্মায় পাল্লার আশপাশের প্রত্যন্ত গ্রাম থেকেও মুসল্লিরা এসে নামায আদায় করেন এবং পবিত্র মাহে রমজানের শেষ জুমায় দুরদুুরান্ত থেকেও মানুষের সমাগমের নজির আছে। পাল্লা জামে মসজিদের স্থাপত্য ও গঠন মোঘল রীতি অনুযায়ী তৈরি। সমতল ভুমি থেকে প্রায় ৫ ফুট উপরে এর অবস্থান। মূল মসজিদের নকশা অনুযায়ী এটি ১৮ গজ (১৬ মিটার) দীর্ঘ, ৭.৫ গজ (৬.৯ মিটার) প্রস্থ এবং প্রতিটি দেয়াল প্রায় ২.৫ গজ (২.২ মিটার) পুরু। পশ্চিমের দেয়াল পোড়া মাটির তৈরি এবং বাকি তিনটি দেয়াল পাথরের তৈরি। মধ্যস্থলে একটি বড় গম্বুজ এবং দুটি ছোট গম্বুজ দ্বারা ছাদ আবৃত। মসজিদটির পুর্বে ৩টি প্রবেশদ্বার রয়েছে। মসজিদটিতে তিনটি মেহরাব থাকলেও সাধারণত মাঝের ও সর্ববৃহৎ মেহরাবটিই ব্যবহৃরিত হয়ে থাকে। উল্লেখ্য, মসজিদটি নির্মাণ কৌশলগত দিক থেকে ঐতিহাসিক জামে মসজিদ গুলোর প্রায় প্রতিচ্ছবি হওয়ায় এটি পাল্লার স্থাপত্য বিকাশের ক্ষেত্রে নতুন মাত্রার জন্ম দেয়। শুধু স্থাপত্য নিদর্শনেই নয়…… শৈল্পিকদিক থেকেও এই মসজিদ উল্লেখ্য। পাল্লা মুসলিম দের ধর্মীয় যে সকল প্রতিষ্ঠান রয়েছে, সেইগুলোর মাঝে পাল্লা জামে মসজিদটি অন্যতম।