নয়নাভিরাম চাটখিল মাহবুব সরকারি কলেজ

আবদুল মোতালেবঃ নোয়াখালী জেলার অন্তর্গত চাটখিল উপজেলার অন্যতম চাটখিল উপজেলার অন্যতম সেরা বিদ্যাপীঠ চাটখিল পাঁচগাঁও মাহবুব সরকারি কলেজের যাত্রা শুরু হয় ১৯৬৬ খ্রিস্টাব্দে।নোয়খালী সদর থেকে প্রায় ৩৫ কিলোমিটার উওর পশ্চিমে ৫.২৯ একর ভূমির উপর প্রতিষ্ঠিত দিগন্ত বিস্তৃত নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ঘেরা মাঠ ও পরিচ্ছন্ন জলরাশি অমিয় ধারায় ভরপুর সুবিশাল দীঘির কোল ঘেঁষে এ ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির অবস্থান। চাটখিল পাঁচগাঁও গ্রুপ্ত উচ্চ বিদ্যালয়ের তৎকালীন প্রধান শিক্ষক ও ১৭ নং পাঁচ গাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী সমাজ সেবক ও চিন্তাবিদ জনাব আলহাজ্ব মাযহারুল ইসলাম চৌধুরি (এম. এ.বি.টি) এ কলেজ প্রতিষ্ঠায় অগ্রণী ভূমিকা রাখেন। ১৯৬৭ খ্রিস্টাব্দে কলেজটি কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের স্বীকৃতি লাভ করে। ১৯৬৮ খ্রিস্টাব্দে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক কলেজটিতে স্নাতক (পাস) কোর্স চালুর ব্যাপারে অনুমোদন প্রদান করা হয়। এবং ২০১৭ সালে অর্নাস কোর্স চালুর অনুমোদন প্রায়। ১৯৮৭ খ্রিস্টাব্দের ৩১ ডিসেম্বর তৎকালীন রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরাশাদের ঘোষনা বলে কলেজটি জাতীয়করণ করা হয়। এক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা পালন করেন সাবেক শিক্ষামন্ত্রী ও এ এলাকার সুযোগ্য সন্তান জনাব এ্যাডভোকেট মাহবুবুর রহমান। বর্তমানে এ কলেজে ৪ টি ভবন রয়েছে এবং ৩৫০০ জন ছাত্র ছাত্রী আছে। এ কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক ছাড়া ও বিএ, বিএস এস ও বি বি এস কোর্স চালু আছে। প্রতিবছর এ কলেজের শিক্ষার্থীরা বোর্ড ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ন্ত্রণাধীন চূড়ান্ত পরীক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জন করে আসছে। উল্লেখ্য যে, প্রতিষ্ঠান জন্ম লগ্নে যাঁরা এ কলেজ ভূমি প্রদান করেন তাঁদের মধ্যে যথাক্রমে এড্যাভোকেট ছাখায়েত উল্লাহ, মাস্টার মোহাম্মদ উল্লাহ, বাবু বগলা প্রসন্ন মজুমদার, গিরেন্দ্রচন্দ্র তপাদার এর নাম উল্লেখ যোগ্য। কলেজের শিক্ষার্থীদের একটা দাবী যেন খুব দ্রুত অর্নাস কোর্স চালু করা হয়। এই কলেজের অধ্যক্ষ ও উপাধ্যাক্ষ এ কলেজকে নোয়াখালী জেলার একটা আর্দশ প্রতিষ্ঠান হিসাবে গড়ে তুলতে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে