নিজেরই এখন চিকিৎসা নেয়া দরকার চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেটির

প্রয়োজনীয় জনবল সংকট, ওষুধ, রুগীদের বেড ও যন্ত্রপাতি সংকট, রোগীদের নিম্নমানের খাবার পরিবেশন, জরুরী বিভাগে সময় মত ডাক্তার না থাকা, বিশুদ্ধ পানির অভাবসহ নানা সমস্যায় নিজেরই এখন চিকিৎসা নেয়া দরকার চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেটির। স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা গেছে, গত বিএনপি জোট সরকার আমলে চাটখিল উপজেলার চিকিৎসা সেবা উন্নয়নে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সটিতে প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যায়ে তৈরী করা হয়। এক্সরে বড় মেশিন নষ্ট, ডেন্টাল ইউনিটের সব মেশিন নষ্ট, ব্ল্যাড ব্যাংক সংকট ও বাথরুমের দুর্গন্ধ এবং মহিলা রোগীরা প্রয়োজনীয় চিকিৎসার সংকট চরমে রয়েছে বলে জানা গেছে। এছাড়া সরকারি হাসপাতালে বিভিন্ন ঔষধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের আনা-গোনা আগের যে কোন সময়ের চেয়ে এখন বৃদ্ধি পেয়েছে। ডাক্তাররা রোগী দেখার চেয়ে ঔষধ কোম্পানীর প্রতিনিধিদের বেশি সময় ব্যয় করছেন। কতিপয় ডাক্তার প্রাইভেট প্র্যাকটিস নিয়ে ব্যস্ত, হাসপাতালের ডাক্তাররা সরকারের নির্ধারিত সময়ের আগেই প্রাইভেট হাসপাতালে গিয়ে রোগী দেখেন, ডাক্তারদের নিয়ম-নীতি না মেনে ইচ্ছামত আসা-যাওয়া করেন বলেও অভিযোগ রয়েছে। অপরদিকে স্বাস্থ্য কেন্দ্রের জেনেরেটর নষ্ট বলে রাত্রে বিদুৎ গেলে যোগ হয় আরো কষ্ট। হাসপাতালে সুত্রে জানা যায়, জেনারেটরটি না চলেও তার প্রয়োজনীয় তৈল সহ সকল খরচ, খরচ হিসাবে নেওয়া হয়। স্বাস্থ্য কেন্দ্রে সময় মতো ডাক্তার না পাওয়ায় উপজেলাবাসী চিকিৎসা সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। বর্তমানে চাটখিল স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নানা সমস্যায় জর্জরিত, ফলে এলাকার জনসাধারণ চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হয়ে প্রাইভেট কিনিক গুলোতে যেতে বাধ্য হচ্ছে।