নতুন মুখ হিসেবে ১নং ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিল ভোট করতে চায় ডা. ফরিদ

ডা. ফরিদ : দীর্ঘদিন আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত থেকে চাটখিল উপজেলা এবং বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের কাছে নিজের ব্যক্তিগত ইমেজকে কাজে লাগিয়ে নতুন মুখ হিসেবে ১নং ওয়ার্ড থেকে কাউন্সিল ভোট করতে চায় ডা. ফরিদ। তিনি পেশায় পল্লী চিকিতসক হওয়া এলাকার জনগণের সাথে তার ব্যক্তিগত সম্পর্ক আশানুরপ। পৌরসভার ওয়ার্ড নং -১পূর্ব ফতেপুর  আবদুস ছোবহান পাটোয়ারী বাড়িতে ১০ অক্টোবর ১৯৮০ সালে জন্ম গ্রহণ করেন ডা. ফরিদ। তার পিতা : নরুল ইসলাম ও মাতা হোসনেয়ারা বেগম। তিনি চাটখিল পৌর সদরে অবস্থিত ভীমপুর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয় ও কারিঘরি কলেজ থেকে ১৯৯৬ সালে এসএসসি ও চাটখিল মাহবুব সরকারী কলেজ থেকে ১৯৯৮ সালে এইচ.এসসি পাশ করে। নোয়াখালী জেলা সদর মাইদজী থেকে তিনি প্যারামেডিকেলের একটি কোর্স করে মেডিক্যাল রিপেজন্টিভ হিসেবে দীর্ঘ কর্মজীবন অতিবাহিত করছেন। ছাত্রজীবনে ড. ফরিদ আওয়ামীলীগের সহযোগী সংগঠন ছাত্রলীগে যোগদানের মাধ্যমে রাজনীতি শুরু করেন। ছাত্রলীগ, যুবলীগ এবং বর্তমানে তিনি ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্বে রয়েছেন। ডা. ফরিদ চাটখিলবার্তাকে বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনিত মেয়র মোহাম্মদ উল্যা, যার বাড়ি চাটখিল পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড ফতেপুরে। তিনি পৌর নির্বাচনে ১নং ওয়ার্ডের সকল বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন, তিনি ও আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী হতে পারলেই আমি কাউন্সিল প্রার্থী হিসেবে ভোট করব অথবা আওয়ামীলীগের মনোনিত প্রার্থীর হয়ে কাজ করবো এবং আওয়ামীলীগের প্রার্থীর জয় নিশ্চিত করতে কাজ কবর। তবে জনগণের ভোট এবং দোয়া প্রত্যাশী ডা. ফরিদ আহমেদ জনগণের জন্যই কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেন।

এলাকার সাধারণ মানুষের সাথে ডা. ফরিদ । ছবি- সংগ্রহিত

৯২এর তুখোর ছাত্রলীগনেতা বাবুল, পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর হতে চান

চাটখিল পৌরসভা নির্বাচনঃ সম্ভাব্য কাউন্সিলর পদে প্রার্থীর ছড়াছড়ি!!