জন্মসনদে ইউপি সচিবের স্থলে স্বাক্ষর করেন কর্মচারী

জন্মসনদে ইউপি সচিবের স্থলে স্বাক্ষর করেন কর্মচারী
হাটহাজারী উপজেলার ৩ নম্বর মির্জাপুর ইউনিয়ন পরিষদ। প্রায় এক যুগেরও বেশি সময় ধরে সেখানকার স্থানীয়দের জন্ম ও মৃত্যুসনদ প্রস্তুতকারী ও পরিষদের সচিব হিসেবে স্বাক্ষর করে যাচ্ছেন মোহাম্মদ বেলাল উদ্দিন নামে এক ব্যক্তি। যিনি সরকারি কোনো কর্মকর্তা তো নন-ই; ইউনিয়ন পরিষদের নিয়মিত কর্মচারীও নন।

মঙ্গলবার (২ ফেব্রুয়ারি) মির্জাপুর ইউনিয়ন পরিষদ পরিদর্শনকালে এ ঘটনার সাক্ষী হয়েছেন হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রুহুল আমিন।

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে তিনি জাগো নিউজকে বলেন, ‘মির্জাপুর ইউনিয়ন পরিষদে জন্ম ও মৃত্যুসনদে প্রায় এক যুগ ধরে স্বাক্ষর করেন না ইউপি সচিব। তার জায়গায় স্বাক্ষর করেন বেলাল নামে ইউনিয়ন পরিষদের একজন ক্যাজুয়াল স্টাফ। যিনি সরকারি কর্মচারী না, তাকে নাকি কোনো ইউপি চেয়ারম্যান কাজ করতে বলেছেন, এটাই তার পরিচিতি।’

রুহুল আমিন বলেন, ‘এ সময় সরকারি সনদে তার স্বাক্ষরের এখতিয়ার আছে কি না জানতে চাইলে ওই কর্মচারী কোনো জবাব দিতে পারেননি। তাকে পরিষদ নিয়োগ দিয়েছে বলে দাবি করলেও তিনি কোনো নিয়োগপত্র দেখাতে পারেননি।