চাটখিলে ৮ম শ্রেনীর শিক্ষার্থীকে মারধর করা চুল কেটে নেওয়ার অভিযোগ

চাটখিলে নিজেদের ঘরে হামলার ঘটনার সময় মোবাইলে ভিডিও ধারন করায় প্রতিপক্ষরা ক্ষিপ্ত হয়ে ৮ম শ্রেনীর কিশোরী শিক্ষার্থী তাসমিকে মারধর করা চুল কেটে নেয়া এবং শীলতাহানীর চেষ্টার অভিযোগ করেছে তাসমির পরিবার। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়নের রুপনগর গ্রামে। তাসমি বর্তমানে চাটখিল সরকারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এই ঘটনায় তাসমির মা সাহিদা সুলতানা তাদের একই বাড়ির লেদা মিয়ার ৩ পুত্র বাবু, শাহজাহান ও সোহেল কে অভিযুক্ত করে চাটখিল থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। সাহিদা সুলতানা জানান, বুধবার তাদের বাড়ির প্রতিপক্ষ বাবু ,শাহজাহান ও সোহেল বিনা কারনে তাদের ঘরে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করা এবং তার স্বামী দেলোয়ার হোসেনকে মারতে উদ্ধত হওয়ার চলমান চিত্র (ভিডিও) তার মেয়ে রামনারায়নপুর উ”্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী তাসমি মোবাইলে ধারন করতে থাকলে প্রতিপক্ষরা তার মোবাইল কেড়ে নিয়ে তাকে মারধর করে মারাত্বক আহত করে এবং তার মাথার পেছনের অংশের চুলের গোছা কেটে নিয়ে যায়। এ সময় তার মেয়ের শ্লিলতাহানীরও চেষ্টা করা হয় বলে অভিযোগে জানা যায়। অভিযোগের তদন্তকারী চাটখিল থানায় কর্মরত এএসআই নুর আজম জানান, ঘটনাটির তদন্ত চলছে এবং তিনি প্রাথমিক তদন্তে কিশোরী তাসমির উপর হামলার প্রমান পেয়েছেন বলেও স্বীকার করেন।