চাটখিলে চোরের দায়ের কোপে গৃহকর্তা খুন

চাটখিল উপজেলার রমাপুর গ্রামে চোরের দায়ের কোপে গৃহকর্তা খুন হয়েছে। ঘাতক বেলালকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয় লোকজন। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রমাপুর গ্রামের লাল গাজি পাটোয়ারী বাড়ীর তাজুল ইসলাম বাড়ীতে একটি নতুন ঘরের কাজ শুরু করেন। ঘরের কাজ সম্পর্ন না হওয়ায় তাজুল ইসলাম ও তার স্ত্রী মোহছেনা একই বাড়ির শহিদ উল্যার মেয়ে মুন্নি প্রকৃতির ডাকে ঘরের বাইরে গেলে একই বাড়িতে বসবাস কারি বেলাল ঘরের লোকজনের অগোচরে ঘরে ডুকে লুকিয়ে থাকে। রাত ২টার দিকে বেলাল মোহছেনার গলার ন্বর্নের চেইন নেওয়ার চেষ্টা করলে মোহছেনা বেলাল কে দেখে চিৎকার দেয়। তার চিৎকারে তাজুল ইসলাম বেলালকে ধরে পেলে। এতে ঘাতক তাদের হাত থেকে ছটকে গিয়ে ঘরের থাকা দা দিয়ে তাজুল ইসলাম ও মোহছেনাকে এলোপাতাড়ি ভাবে কোপিয়ে মারাতœক জখম করে। মুমুর্ষ অবস্থায় তাজুল ইসলাম ও মোহছেনাকে চাটখিল হাসপাতালে ও পরে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি ঘটলে তাজুল ইসলামকে ঢাকা নেওয়ার পথে মঙ্গলবার বিকেলে মৃত্যু ঘটে। ঘাতক বেলাল মঙ্গলবার দুপুরে নোয়াখালী হাসপাতালে মোহছেনাকে দেখতে গেলে স্থানীয় লোকহন তাকে আটককরে পুলিশে সোপর্দ করে। পুলিশ ঘাতক বেলালকে জেলে প্রেরন করেন। এ ব্যাপারে চাটখিল থানার ওসি নাজমুল হক বলেন তাজুল ইসলামের লাশ উদ্বার করে হাসপাতালের মর্গে প্রেরন করা হয়েছে এবং থানায় হত্যা মামলা হয়েছে।