চাটখিলের বিএনপি রাজনীতি কোন পথে !!!

টানা ১২ বছর ক্ষমতার বাইরে চাটখিল উপজেলা বিএনপি। সর্বশেষ নির্বাচনে চরমভাবে বিপর্যস্ত। না মাঠে, না কৌশলে—কোনোভাবেই প্রতিপক্ষের সঙ্গে কুলিয়ে উঠতে পেরেছে। কারণ, বিপুল জনসমর্থন থাকার পরও উপজেলা বিএনপি সঠিক সময়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে না। স্বাভাবিকভাবেই দলটির নেতা–কর্মীদের অনেকেই হতাশ। বিশেষ করে যাঁরা ক্ষমতাবলয়ের কাছাকাছি থেকে সুবিধা লাভের চিন্তা করেন। কিন্তু যাঁরা প্রকৃতই রাজনীতিবিদ, তাঁরা এখান থেকে নতুন দিনের দিশা খুঁজে পাচ্ছেন। চাটখিলের বিএনপি নেতারা বলে চলছে সরকারের ওপর জনসাধারণ সন্তুষ্ট নয়। কিন্তু বিএনপি সরকারের অজনপ্রিয়তার সুযোগও নিতে পারেনি। বিএনপির নেতৃত্বের দুর্বলতা, সময়কে অনুধাবনের অক্ষমতা, একগুঁয়েমি, বিভিন্ন পর্যায়ে যোগ্য ও দক্ষ নেতা নির্বাচনে ব্যর্থতার কারণেই দীর্ঘ সময় ধরে দলটি ক্ষমতার বাইরে। বিএনপি সরকারে নেই, সংসদে নেই, মাঠেও নেই। প্রশ্ন হচ্ছে রাজনৈতিক দল হিসেবে চাটখিল উপজেলা বিএনপির অবস্থান কোথায়? কেবল ঘরোয়া বৈঠক ও বিবৃতির জোরে বিএনপি এ অবস্থায় কী করতে পারবে?এদিকে বিএনপির সৃষ্টির পর থেকে চাটখিল উপজেলার তথা নোয়াখালী-১ আসনে বরাবরই বিএনপির জয়লাভ করে। স্থানীয় ভাষায়, “বিএনপি দলের মনোনয়ন কলা গাছ হলেও হয়, যদি মার্কা থাকে ধানের শীষ’’। এতো ভালোবাসা, ভোট ব্যাংক এমনকি টানা ১২ বছর ক্ষমতার বাইরে থাকারপরেও সু-সংগঠিত নেতাকর্মীদের কাজে লাগাতে না পারায় বিএনপির রাজনীতি আগামীতে কোন পর্যায়ে পৌছাবে  সেটা শুধু দেখা ছাড়া আর কিছুই করা নাই। এবার যাই বিএনপির শুরুর দিকে, ১৯৯১ সালে প্রথম তত্ত্ববধায়ক সরকারের অধিনে নির্বাচনে বিএনপি একক ভাবে ক্ষমতায় আসে। সে সময় বিএনপির ক্ষমতার রাজনীতি করতে গিয়ে ক্ষমতাবান নেতাদের হুশ ছিলনা। এদেশের রাজনীতিতে ক্ষমতা থাকলে ক্ষমতাবান ব্যক্তিরা যা করে চাটখিল তার ভিন্ন কিছু ছিলনা। ১৯৯১ নির্বাচনে পরাজয়ের পর হতাশায় ভেঙ্গে পড়ে চাটখিল উপজেলা বিএনপি। চাটখিলের বিএনপির প্রচলিত রাজনীতিকে ধারণ করে জনবিচ্ছিন্ন হতে হতে কোনোরকমে টিকে ছিল ৫বছর। তবে এখন যা করছে তাকে ঠিক সক্রিয়তাও বলা যায় না। বিএনপির পক্ষ থেকে যুক্তি দেওয়া হতে পারে, দলের কয়েক শত নেতা–কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা আছে। গুম, খুনও কম হয়নি। নির্বাচনের আগে বিএনপির অনেক নেতা–কর্মীকে আওয়ামী লীগ ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তাড়া খেয়ে ধানখেতে পর্যন্ত ঘুমাতে হয়েছে।বিএনপির ওপর এত দমন–পীড়নের পরও চাটখিলের জনসাধারণকে কেন বিএনপি পাশে পাচ্ছে না?