চাটখিলের জেবুন্নেছা জেনারেল হাসপাতালে স্বেচ্ছায় দানকৃত রক্ত বিক্রয়ের অভিযোগ

ষ্ট্যাফ রিপোর্টার: মানুষের স্বাস্থ্যের বিষয় চিন্তা করে, কিছু সেচ্ছাসেবি প্রতিষ্ঠান এবং ব্যক্তি উদ্দ্যোগ বিনামূল্যে রক্ত প্রদান করে থাকে। তাদের বিনা মূলের রক্তগুলো রোগিদের মাধ্যে বিনামূল্যে না দিয়ে, উচ্চ মূল্যে বিক্রয়ের অভিযোগ উঠেছে চাটখিলে জেবুন্নেছা জেনারেল হাসপাতাল নামে একটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে। বিষয়টি নিয়ে লিখিত অভিযোগ অভিযোগ করেছে সামাজিক উন্নয়ন ও স্বেচ্ছায় রক্তদাতা সংগঠন। আজ ৪ মার্চ সকালে চাটখিল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর লিখিত অভিযোগ দিয়েছে সামাজিক উন্নয়ন ও স্বেচ্ছায় রক্তদাতা সংগঠন গুলো। অভিযোগে বলা হয়েছে সামাজিক উন্নয়ন ও স্বেচ্ছায় রক্তদাতা সংগঠনের সদস্যরা স্বেচ্ছায় বিনামূল্যে অসহায় ও গরীব সহ বিভিন্ন রুগীদের রক্ত দিতে গিয়ে চাটখিল জেবুন্নেছা জেনারেল হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ধারা অপদস্থ অবমাননা সহ নানা জটিলতার সম্মুখীন হতে হয়। তারই ধারাবাহিকতায় গত ২৫ ফেব্রুয়ারিতে স্বেচ্ছায় রক্তদাতা সংগঠন চেইঞ্জ অব কমিউনিটি অরগানাইজেশান এর প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হাফিজ তানভীর রক্ত দিয়ে গিয়ে হাসপাতাল কর্তৃক

অপদস্থ অবমাননার শিকার হয় এবং জেবুন্নেছা জেনারেল হাসপাতালের এমডি নুর মোহাম্মদ হান্নান এই স্বেচ্ছায় রক্তদাতা এ.জে.এম হাফিজ তানভীর কে মারধরের হুমকি দেয় এবং পরবর্তীতে ২৯ ফেব্রুয়ারি রাতে সোনাইমুড়ী উপজেলার জয়াগ বাজারে জেবুন্নেছা জেনারেল হাসপাতালের এমডি নুর মোহাম্মদ হান্নান ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী আলমগীর (২৮) ফারুক (২৬) এসে অতর্কিত হামলা করে বেধড় মারধর করে। পরে বাজারের আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়।

এই ব্যাপারে জানতে জেবুন্নেছা জেনারেল হাসপাতালের এমডি নুর মোহাম্মদ হান্নানের ব্যক্তিগত মোবাইল নাম্বার (০১৭১৫৪৮২৪৬১) বারবার যোগাযোগ করার চেষ্টা ও করলে সংযোগ দেওয়া সম্ভব হয়নি।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দিদারুল আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন কিছু সামাজিক উন্নয়ন ও স্বেচ্ছায় রক্তদাতা সংগঠন থেকে আমাদের কাছে একটা লিখিত অভিযোগ এসেছে আমরা অতিদ্রুত এই বিষয়ে তদন্ত করে দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।