কিশোরীকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে ২৮ ঘণ্টা আটক রেখে ধর্ষণ।

সুবর্ণচরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে ২৮ ঘণ্টা আ’টক রেখে গণধ’র্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

পুলিশ এক ব্যক্তিকে গ্রে’প্তার করেছে। ভিকটিম সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের নিকট ২২ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

চরজব্বর থানার অফিসার ইনচার্জ ইব্রাহিম খলিল সাংবাদিকদের জানায়, চরতোরাব আলী মাঝির বাড়ির ভিকটিম (১৬) এর সাথে একই এলাকার আকবর হোসেন (২৩) নামে এক যুবকের ৫-৬ মাস থেকে প্রেম চলছিল। রাত ১২টায় আকবর হোসেন ভিকটিমকে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ডেকে নিয়ে যায় এবং বন্ধু রিয়াজ (২৩) এর বসতঘরে নিয়ে আ’টক করে তার ইচ্ছার বি’রুদ্ধে শুক্রবার রাত থেকে ভোর ৪টা পর্যন্ত উপর্যুপরি ধ’র্ষণ করে।

ধ’র্ষণের ফলে সে অজ্ঞান হয়ে পড়লে আকবর হোসেনের বন্ধু বিজয় রুবেল (২২) ও রিয়াজ (২৩) তাকে পানি ছিটিয়ে জ্ঞান ফিরিয়ে এনে পালাক্রমে ধ’র্ষণ করে।

ভোরে ভিকটিম কৌশলে তার মাকে ফোন করলে তার মা প্রতিবেশী মহিলাদের নিয়ে এসে বিজয়ের ঘর থেকে তাকে উ’দ্ধার করে এবং ভিকটিমকে চিকিৎসা করানোর পর সোমবার চরজব্বর থানায় ভিকটিমের মা জয়তুন নুর বাদী হয়ে মা’মলা করে।

পুলিশ তাৎক্ষণিকভাবে আসামি বিজয়কে গ্রে’প্তার করে সিনিয়র ম্যাজিষ্ট্রেট নবনীতা গুহের আদালতের মাধ্যমে কা’রাগারে প্রেরণ করেন।